বৃদ্ধকে রাস্তায় ফেলে গেল স্বজনরা, দায়িত্ব নিলেন ওসি

চলার ক্ষমতা নেই বৃদ্ধ, স্বজনদের কাছে হয়ে দাঁড়িয়েছেন বোঝা। তাই রাস্তার পাশে ফেলে গেলেন স্বজনরা। তবে স্বজনদের কাছে ঠাই না হলেও দায়িত্ব নিয়েছেন এক পুলিশ। রাস্তা থেকে উদ্ধারের পর ভর্তি করা হলো হাসপাতালে। এমনই ঘটনা ঘটেছে মুন্সিঞ্জের শ্রীনগরে। আজ সোমবার ১৯ সেপ্টেম্বর দুপুর ৩টার দিকে উপজেলার কোলাপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এদিকে স্বজনদের ফেলে যাওয়া আব্দুল কাদের (৬৫) নামের পক্ষাঘাতগ্রস্ত বৃদ্ধকে রাস্তার পাশ থেকে উদ্ধার পর চিকিৎসার দায়িত্ব নিয়েছেন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুল ইসলাম। বর্তমানে বৃদ্ধ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি রয়েছেন। বৃদ্ধ ব্যক্তি উপজেলার কামারগাঁও এলাকার মৃত আব্দুর রহমানের ছেলে।

জানা যায়, আজ দুপুর ২টার দিকে কোলাপাড়া মাদরাসার পাশে পক্ষাঘাতগ্রস্ত রোগী কাদেরকে একটি রেক্সিনের ওপর বালিশ দিয়ে স্বজনরা শুইয়ে রেখে চলে যায়। পাশে একটি বস্তায় তার পড়নের কাপড় রাখা ছিলো। স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন শ্রীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত অফিসার মো. আমিনুল ইসলাম। তিনি আব্দুল কাদেরকে উদ্ধার করে শ্রীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। এ সময় পক্ষাঘাতগ্রস্ত আব্দুল কাদের জানান, তার ভাই পলাশ তাকে এখানে ফেলে গেছে। তার ১ মেয়ে ও ৩ ছেলে রয়েছে। ছেলে-মেয়েরা তার কোনো খোঁজ নেন না। পক্ষাঘাতগ্রস্ত হয়ে যাওয়ার পর থেকেই পরিবারের লোকজন বিরক্ত। কোলাপাড়া গ্রামে তার মেয়ে কোহিনুরের জামাতা রয়েছে। তিনি একটি মসজিদে চাকরি করেন।

এ বিষয়ে শ্রীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম জানান, স্থানীয়দের মাধ্যমে অসুস্থ আব্দুল কাদেরের খবর জানতে পারি। খবর পেয়ে সেখানে ছুটে যাই এবং তাকে উদ্ধার করে শ্রীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। বেশ কয়েক বছর ধরে সে পক্ষাঘাতগ্রস্ত ছিলো। তার স্বজনদের খোঁজ চলছে। মানবিক দিক বিবেচনায় তার চিকিৎসার দায়িত্ব আমি নিয়েছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.