যে ছয় খাবারে ফুসফুস ভালো থাকবে

মানবদেহের অতি গুরুত্বপূর্ণ একটি অঙ্গ হলো ফুসফুস। ঠিক মতো যত্ন না নিলে এতে নানা সমস্যা দেখা দেয়। ফুসফুসের সুরক্ষায় নিয়মিত সুষম খাদ্য গ্রহণ করা জরুরি। কিছু খাবার রয়েছে, যা গুরুত্বপূর্ণ এই অঙ্গটিকে ভালো রাখে। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক সেই খাবার সম্পর্কে-
সবুজ শাক-সবজি দেহের সব অঙ্গ-প্রত্যঙ্গের জন্যই সবুজ শাকসবজি জরুরি। এমনটাই মনে করেন চিকিৎসকরা। সমীক্ষা অনুযায়ী, সবুজ শাকসবজি ফুসফুস ক্যানসারের আশঙ্কা প্রবলভাবে হ্রাস করে। তাই খাদ্যতালিকায় পালংশাক, মেথি, ব্রকোলি, সবুজ ক্যাপসিকামসহ মৌসুমি সবজিগুলো রাখুন।

আপেল
প্রবাদ রয়েছে ‘অ্যান অ্যাপল এ ডে, কিপ দ্য ডক্টর অ্যাওয়ে।’ অর্থাৎ দিনে একটি আপেল খান আর চিকিৎসককে দূরে রাখুন। এক সমীক্ষায় দেখা গেছে, সপ্তাহে পাঁচটির বেশি আপেল খায় এমন মানুষের ফুসফুসের কার্যকারিতা অন্যদের তুলনায় বেশি। এতে শ্বাসগ্রহণের সময়ে বুকে শনশন শব্দের প্রবণতা হ্রাস পায়।

কালোজিরা
ফুসফুস ভালো রাখতে কালোজিরার জুড়ি নেই। এতে থাকা অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট শ্বাসনালির প্রদাহ রোধ করতে সাহায্য করে। প্রতিদিন আধা চা-চামচ কালোজিরার গুঁড়া এক চা চামচ মধুর সঙ্গে মিশিয়ে খান। ফুসফুস ভালো থাকবে।

হলুদ
এটি অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট হিসেবে পরিচিত। এটি দূষিত কণার প্রভাব থেকে ফুসফুসকে সুরক্ষা দিতে কাজ করে। কফ ও হাঁপানির সমস্যা সমাধানে হলুদ ও ঘিয়ের মিশ্রণ কাজে লাগে। তাই খাদ্যতালিকায় হলুদ রাখুন।

বেরি
স্ট্রবেরি, ব্লুবেরি বা ব্ল্যাকবেরি রয়েছে এই তালিকায়। বেরিজাতীয় ফলে রয়েছে অ্যান্থোসায়ানিন। নিয়মিত এসব ফল খেলে ফুসফুসের কর্মদক্ষতা বাড়ে। ফুসফুস ভালো রাখতে এসব খাবার খান।শুধু ফুসফুস নয়, এসব খাবার শরীরের প্রত্যেকটি অঙ্গ-প্রত্যেঙ্গের জন্যেই জরুরি। পাশাপাশি ধূমপানের অভ্যাস থাকলে তা অবশ্যই ছাড়ুন। রান্নায় পরিমিত লবণ ব্যবহার করুন।

গ্রিন টি ও কফি
২০১৭ সালে কোরিয়ান একটি গবেষণায় দেখা গেছে, নিয়মিত যারা গ্রিন টি পান করেন তাদের ফুসফুসের কার্যকারিতা যারা পান করে না তাদের তুলনায় বেশি ভালো। কফি পান করলে ফুসফুসের শ্বাস-প্রশ্বাসজনিত নানা রোগ থেকে রক্ষা করে পাশাপাশি ফুসফুসের কার্যকারিতা ভালো রাখতে সাহায্য করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.