রাতে বাড়িতে ঢুকে কিছু না পেয়ে গৃহবধূর সর্বনাশ করলো দুই চোর

এবার চুরি করতে একটি বাড়িতে ঢুকে কিছু না পেয়ে অবশেষে এক গৃহবধূকে গণধর্ষণ করেছে চোরের দল। ভারতের উত্তর ২৪ পরগনার হাসনাবাদে ঘটেছে এ ঘটনা। এ সময় ওই গৃহবধূর চিৎকারে গ্রামবাসীরা ছুটে এসে ধরে ফেলেন দুই দুষ্কৃতকারীকে। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।
এর পর দুই ধর্ষককে গণধোলাই দিয়ে তুলে দেওয়া হয় পুলিশের হাতে। আটক দুই চোর একই গ্রামের বাসিন্দা বলে জানা গেছে। পুলিশ জানায়, হাসনাবাদ থানার খরমপুর খাড়াপাড়ার বাসিন্দা আমজাদ মোল্লা (২৪) এবং সাজ্জাক মোল্লা (২৫) ওই ঘটনায় অভিযুক্ত।

এদিকে স্থানীয়দের অভিযোগ, ওই দুই যুবক পাড়ারই এক বাড়িতে চুরি করতে ঢোকেন। কিন্তু বাড়িতে কিছু না পেয়ে গৃহবধূর ওপর চড়াও হন। তাকে জোর করে ধর্ষণ করা হয় বলে অভিযোগ করেন তিনি। এ সময় গৃহবধূর চিৎকারে প্রতিবেশীরা এসে দুই যুবককে ধরে ফেলেন। তার পর তাদের গণধোলাই দেওয়া হয়। খবর পেয়ে ছুটে আসে হাসনাবাদ থানার পুলিশ। গ্রামবাসী দুই যুবককে পুলিশের হাতে তুলে দেন। নির্যাতিতার অভিযোগের ভিত্তিতে দুজনকেই গ্রেফতার করা হয়েছে। পুলিশের ধারণা, আটক দুই যুবক ওই পরিবারের পূর্ব পরিচিত।

গতকাল শুক্রবার বসিরহাট মহকুমা আদালতে হাজির করা হয় তাদের। বসিরহাট জেলা হাসপাতালে নির্যাতিতার মেডিকেল পরীক্ষা করানো হয়েছে। নির্যাতিতার গোপন জবানবন্দি নেবেন ম্যাজিস্ট্রেট। এ প্রসঙ্গে বসিরহাটের জেলার এসপি জোবি থমাস বলেছেন, বৃহস্পতিবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে। আমরা অভিযোগ পেয়েছি। তাদের দুজনকেই গ্রেফতার করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার আদালত দুজনকেই চার দিনের রিমান্ড দিয়েছেন। আমরা তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.