বাংলাদেশ যুদ্ধ চায় না, প্রয়োজনে জাতিসংঘে অভিযোগ জানানো হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

আজ দুপুরে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, ‘বাংলাদেশ কোনো যুদ্ধ চায় না। আমরা শান্তিপূর্ণ সমাধান চাই। মিয়ানমারের সংঘাত যাতে আমাদের দেশে না আসে সেই ব্যবস্থা নিতে বলেছি। তারা যদি কথা না শোনে তাহলে আমরা জাতিসংঘের কাছে অভিযোগ দেব।’ আজ শনিবার ১৭ সেপ্টেম্বর দুপুরে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি আরও বলেন, মিয়ানমারে সংঘর্ষের মধ্যে বাংলাদেশে যাতে কোনো রোহিঙ্গা প্রবেশ করতে না পারে সে জন্য বিজিবিকে সতর্ক অবস্থায় রাখা হয়েছে। দু-একজন আসলেও তাদের পুশব্যাক করা হচ্ছে।

এর আগে গতকাল শুক্রবার ১৬ সেপ্টেম্বর রাত ৮টার দিকে বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম কোনার পাড়া সীমান্তে মিয়ানমারের ছোড়া ৪টি মর্টার শেলের বিস্ফোরণে এক রোহিঙ্গা যুবক নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন রোহিঙ্গা শিশুসহ ৬ জন।। এ ঘটনার পর ঘুমধুম সীমান্তে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। এদিকে প্রায় এক মাস ধরে সীমান্তে উত্তেজনা চলছে। ওপারে মিয়ানমার থেকে মর্টার শেলসহ নানা ভারী অস্ত্রের আওয়াজে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম ইউনিয়নের তমব্রু ও বাইশপারী এলাকার মানুষ আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছে।

গত ২৮ আগস্ট তমব্রু উত্তরপাড়ায় এসে পড়েছে একটি অবিস্ফোরিত মর্টার শেল। সেদিনই সীমান্তে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর হেলিকপ্টার ও যুদ্ধবিমান চক্কর দিতে দেখা যায়। এর আগে, গত ৩ সেপ্টেম্বর মিয়ানমারের দুটি যুদ্ধবিমান ও ফাইটিং হেলিকপ্টার থেকে ছোড়া দুটি গোলা ঘুমধুম ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ড এলাকায় পড়ে। সেগুলো অবিস্ফোরিত থাকায় হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.