মিয়ানমারের মাইন বিস্ফোরণে বাংলাদেশি তরুণের পা বিচ্ছিন্ন

আজ দুপুরে বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তের ওপারে মিয়ানমার অভ্যন্তরে ল্যান্ডমাইন বিস্ফোরিত হয়ে অংঞাথোয়াই তঞ্চঙ্গ্যা (২২) নামে এক বাংলাদেশি তরুণ আহত হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। আজ শুক্রবার ১৬ সেপ্টেম্বর দুপুরে নাইক্ষ্যংছড়ির ঘুমধুম ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের তুমব্রু হেডম্যানপাড়া সীমান্তের ৩৫ নম্বর পিলার সংলগ্ন ৩০০ মিটার মিয়ানমার অভ্যন্তরে মাইনটি বিস্ফোরিত হয়। জানা যায়, আহত তরুণ ঘুমধুম ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের তুমব্রু হেডম্যানপাড়া এলাকার অং কিউ থাইং তঞ্চঙ্গ্যার ছেলে।

এ বিষয়ে স্থানীয় আরিফ উল্লাহ জানান, তুমব্রু হেডম্যানপাড়ার স্থানীয়দের গবাদি পশু ঘাস খেতে খেতে মাঝেমধ্যে সীমান্তের ওপারে চলে যায়। ফলে সেগুলো ফিরিয়ে আনতে মালিকদের সীমান্ত এলাকায় যেতে হয়। আজও অংঞাথোয়াই তঞ্চঙ্গ্যা গরু চরা‌নোর সময় তার গরু সীমান্তের ওপারে চলে গেলে সেটি ফিরিয়ে আনতে যায়। সেখানে মিয়ানমার আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পুঁতে রাখা ল্যান্ডমাইন বিস্ফোরিত হয়ে অংঞাথোয়াই তঞ্চঙ্গ্যার বাঁ পায়ের গোড়ালিসহ পায়ের পাতা বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। গুরুতর আহত অবস্থায় চিকিৎসার জন্য কুতুপালং এমএসএফ হাসপাতালে নেওয়া হলে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়।

এ বিষয়ে ঘুমধুম ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ড সদস্য মো. আনোয়ার হোসেন জানান, সীমান্তের ওপার থেকে গরু আনতে গিয়ে ল্যান্ডমাইন বিস্ফোরিত হয়ে তমব্রু হেডম্যানপাড়ার একজন গুরুতর আহত হয়েছেন। মিয়ানমার সেনাবাহিনীর পুঁতে রাখা মাইন বিস্ফোরিত হয়ে প্রতি বছর এ ধরনের ঘটনা ঘটে।

এদিকে ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আজিজ ঘটনা সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, নাইক্ষ্যংছড়ির তুমব্রু সীমান্তের ৩৫ নম্বর পিলার এলাকায় মাইন বিস্ফোরণে এক বাংলাদেশি তরুণ আহত হয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.