বিনা পারিশ্রমিকে প্রতি শুক্রবার মসজিদ পরিষ্কার করেন এই শিক্ষার্থীরা

আজ শুক্রবার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ। এ সুযোগে আশপাশের বিভিন্ন মসজিদ ধুয়ে-মুছে পরিষ্কার করেন কুমিল্লার একদল শিক্ষার্থী। বয়সে তারা তরুণ। এ পর্যন্ত ৩৪টি মসজিদ পরিষ্কার করেছেন কোনো ধরনের পারিশ্রমিক ছাড়াই। গত ২০২১ সাল থেকে এ কাজ করছেন জেলার চৌদ্দগ্রাম থানার গুণবতী ইউনিয়নের চাঁপাচৌ গ্রামের এসব তরুণরা। সর্বশেষ আজ শুক্রবার ১৬ সেপ্টেম্বর চাঁপাচৌ পশ্চিমপাড়া জামে মসজিদ পরিষ্কার করেছে তারা। স্থানীয় চাঁপাচৌ গ্রামের বাসিন্দা জাহেদ ভূঁইয়া সুজন সর্বপ্রথম এ কাজের উদ্যোগ নেন। পরে একটি সংগঠন খোলা হয়। সংগঠনের ব্যানারে বর্তমানে এ কাজ করেন স্বেচ্ছাসেবকরা।

এ সময় জাহেদ ভূঁইয়া সুজন বলেন, আমরা সওয়াবের জন্যে এ কাজ করি। এজন্য কোনো পারিশ্রমিক নেই না। বরং নিজের পকেটের টাকা খরচ হয়। মসজিদ পরিষ্কার করার জন্যে আমাদের একটি সংগঠনও খোলা আছে। সংগঠনের নাম চাঁপাচৌ ইসলামিক সাংস্কৃতিক পরিষদ স্বেচ্ছাসেবক গোষ্ঠী। এদিকে হাফেজ মো. সাকিব হোসেন হৃদয় বলেন, আজ শুক্রবার আমাদের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকে। এ দিনই আমরা কাজটি করি। এখন পর্যন্ত আমরা ৩৪টি মসজিদ পরিষ্কার করেছি।

তিনি আরও বলেন, মসজিদ পরিষ্কার করা অনেক সওয়াবের কাজ। হাদিসে এসেছে, হজরত সাঈদ খুদরি (রা.) হতে বর্ণিত রাসুল (সা.) বলেন, ‘যে ব্যক্তি মসজিদ থেকে ময়লা আবর্জনা কিংবা কষ্ট হয় এমন বস্তু দূর করবে তার জন্য আল্লাহ তায়ালা জান্নাতে একটি ঘর নির্মাণ করে দেবেন।’ এ সময় সাকিব বলেন, আমরা সেই উদ্দেশ্য নিয়েই কাজ করছি। দুনিয়াবি কোনো উদ্দেশ্য আমাদের নেই। এখানে সবাই স্বেচ্ছায় কাজ করে এবং আখেরাতের উদ্দেশ্যে কাজ করেন।

জাহেদ ও সাকিব ছাড়াও স্বেচ্ছাসেবক দলটির অন্য সদস্যরা হলেন- রবিউল আউয়াল শুভ, আলাউদ্দিন, বাপ্পি, নাঈম, হৃদয়, শাওন কাওসার ও পিয়াস।

Leave a Reply

Your email address will not be published.