বাংলাদেশের ত্রাণ প্রস্তাব ফিরিয়ে দিল বন্যাদুর্গত পাকিস্তান

এবার বিশ্ব পরিমণ্ডলে ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হতে পারে, এমন আশঙ্কায় বাংলাদেশের এক কোটি ৪০ লাখ টাকা মূল্যের মানবিক ত্রাণ সহায়তার প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছে বন্যাদুর্গত পাকিস্তান। নজিরবিহীন প্রাকৃতিক এই বিপর্যয়ে পাকিস্তানের এক ততৃীয়াংশ এলাকা পানির নিচে তলিয়েছে। বন্যাকবলিত লাখ লাখ মানুষ অনাহারে-অর্ধাহারে যখন দিনাতিপাত করছে, তখন বাংলাদেশ ত্রাণ সহায়তার প্রস্তাব দিলেও তা গ্রহণ করেনি পাকিস্তান। গতকাল বুধবার ভারতীয় বার্তা সংস্থা ইন্দো-এশিয়ান নিউজ সার্ভিসের (আইএএনএস) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে। এর আগে, গত ১২ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশের দুর্যোগ ও ত্রাণ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয় বন্যাকবলিত পাকিস্তানে মানবিক ত্রাণ সহায়তা তহবিলের অনুমোদন দেয়।

ওই দিন দেশটিতে ১০ টন বিস্কুট, ১০ টন ড্রাই কেক, পানি বিশুদ্ধকরণ ১০ হাজার ট্যাবলেট, ৫০ হাজার প্যাকেট ওরাল স্যালাইন, ৫ হাজার মশারি, ২ হাজার কম্বল ও ২ হাজার তাঁবু পাঠানোর জন্য এক কোটি ৪০ লাখ টাকার তহবিলের অনুমোদন দেওয়া হয়। তবে পাকিস্তান এখনও বাংলাদেশের বন্ধুত্বপূর্ণ ও মানবিক ত্রাণ সহায়তার প্রস্তাব গ্রহণ করবে কিনা সেটি দেখার বিষয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মতে, দেশের ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকার সব সময়ই মানবতার প্রতি উদার এবং বন্যায় ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত পাকিস্তানে ত্রাণ সহায়তা পাঠাতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

তিনি বলেছেন, এ ধরনের যেকোনও ত্রাণ সহায়তা পাকিস্তানের বৈশ্বিক ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করতে পারে আশঙ্কায় পাকিস্তানের সেনাবাহিনী বাংলাদেশের ত্রাণ সহায়তার প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছে বলে জানা গেছে। দেশটির সংবাদমাধ্যম এক্সপ্রেস ট্রিবিউন বলছে, পাকিস্তানে এবারের বন্যায় ৪০ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের আর্থিক ক্ষয়ক্ষতি হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। সূত্র: আইএএনএস।

Leave a Reply

Your email address will not be published.