মানসিক প্রশান্তির খোঁজে একে একে ৫৩ বিয়ে!

এবার ব্যক্তিগত প্রশান্তির জন্য নয়, মনের প্রশান্তির জন্য একে একে ৫৩ টি বিয়ে করার কথা জানিয়েছেন এক সৌদি নাগরিক। এ বিয়েকে ‘শতাব্দির বহুবিবাহ’ হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। গালফ নিউজের এক প্রতিবেদনে এই তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে। ৬৩ বছর বয়সী সৌদির ওই নাগরিক দেশটির মালিকানাধীন এমবিএস টেলিভিশনে দেয়া এক সাক্ষাতকারে সর্বশেষ এক নারীকে বিয়ের কথা জানান। তিনি আরও বলেন এখন তার আর কোনো বিয়ে করার ইচ্ছা নেই। তিনি বলেন, “যখন আমি প্রথম বিয়ে করি তখন আমার বহু বিবাহ করার কোনো ইচ্ছা ছিল না। কারণ প্রথম বিয়ে করে আমি সুখেই ছিলাম এবং আমার একটা সন্তানও হয়েছিল। কিন্তু পরবর্তীতে সমস্যা দেখা দেওয়ার কারণে আমাকে দ্বিতীয় বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নিতে হলো। তখন আমার বয়স ছিল ২৩ বছর। দ্বিতীয় বিয়ে করার সিদ্ধান্ত আমার স্ত্রীকে জানাই।”

আবু আব্দুল্লাহ নামের ওই ব্যক্তি বলেন, প্রথম এবং দ্বিতীয় স্ত্রীর মধ্যে ঝামেলা বাধলে আমি তৃতীয় এবং চতুর্থ বিয়ে করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করি। পরবর্তীতে ১ম, ২য় এবং ৩য় স্ত্রী তালাক দেই। জীবনে এমন একজন নারীকে খুঁজেছেন যিনি তাকে শান্তিতে রাখতে পারেন। তবে তিনি যাদেরকে বিয়ে করেছেন তাদের তিনি ন্যায্য অধিকার দিয়েছেন। তিনি বলেন, দীর্ঘ সময় নিয়ে আমি ৫৩ নম্বর বিয়ে করেছি। তিনি আরও বলেন, প্রত্যেক পুরুষই চায় একজন নারীর সাথে সারা জীবন কাটিয়ে দিতে। কিন্তু এটা যুবতী কোনো নারীর সাথে সম্ভব নয়। যতটা সম্ভব একজন বয়স্ক নারীর সাথে। তিনি একজন স্ত্রীর সাথে সবচেয়ে কম সময় পার করেছেন। তার সাথে মাত্র এক রাত থেকেই সম্পর্ক ছিন্ন হয়ে যায়।

এদিকে তিনি যাদের বিয়ে করেছেন তাদের মধ্যে অধিকাংশই সৌদি নারী। তবে তিনি যখন ব্যবসায়ের কাজের জন্য দূর দেশে ভ্রমণ করেছেন তখন চরিত্র হেফাজত রাখার জন্য সৌদি আরবের বাইরের নারীদেরও বিয়ে করেছেন। কারণ ব্যবসায়ের জন্য তিনি থেকে চার মাস বাইরে থাকতেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.