গরু চুরি করে ক্লান্ত হয়ে ঘুমিয়ে পড়ল চোর, সকালে আটক করলো এলাকাবাসী

মধ‍্যরাতে রাত দুইটায় একটি গরু চুরি করে সোহাগ নামের এক যুবক। চুরি করা গরু নিয়ে প্রায় ২০ কিলোমিটার রাস্তা হেটে ক্লান্ত হয়ে পড়ে চোর। এক পর্যায়ে একটি সুপারি গাছের সাথে গরুটি বেঁধে ঘুমিয়ে পড়ে সোহাগ। পরে সন্দেহ হলে গরুসহ চোরকে আটক করে এলাকাবাসি। এ ঘটনাটি ঘটেছে কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারী উপজেলায়। জানা গেছে, ভুরুঙ্গামারী উপজেলা পাথরডুবি ইউনিয়নের পশ্চিম পাথরডুবী গ্রামের আব্দুল মজিদ এর বাড়ি থেকে গত সোমবার মধ‍্যরাতে একটি গরুর চুরি হয়। অনেক খোঁজাখুঁজির পর পাইকেরছড়া ইউনিয়নের পাইকেরছড়া গ্রামের বিসমিল্লা বাজার এলাকা থেকে গরু সহ চোরকে আটক করে স্থানীয় জনতা। আটক কৃত ব‍্যক্তির নাম সোহাগ হোসেন (২২)। সে একই এলাকার আনোয়ার হোসেনের ছেলে।

এ বিষয়ে আটক সোহাগ জানান, সে তার চাচার গরু চুরি করে প্রায় বিশ কিলোমিটার হেটে দুধকুমার নদীর কাছে বিসমিল্লাহ বাজারে আসলে ভোর হয়ে যায়। শরীর ক্লান্ত আর চোখে ঘুম ধরলে গরু গাছের সাথে বেঁধে ঘুমিয়ে পড়ি। এদিকে পাইকেরছড়া ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা আবেদ আলী বলেন, আজ মঙ্গলবার ১৩ সেপ্টেম্বর সকালে বিসমিল্লাহ বাজার এলাকায় সুপারি গাছের সাথে লাল রঙের একটি গরু বেঁধে রেখে পাশে একটি ছেলেকে ঘুমিয়ে থাকতে দেখি। সন্দেহ হলে এলাকার লোকজনসহ ছেলেটিকে ঘুম থেকে তুলে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে গরু চুরির কথা স্বীকার করে। পরে গরুসহ লোকটিকে আটক করে সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের গ্রাম পুলিশ নজরুল ইসলাম এর মাধ্যমে ইউপি সদস‍্যের কাছে সোপর্দ করা হয়।

এ বিষয়ে ইউপি সদস্য আবু সায়াদাত মোঃ বজলুর রহমান বলেন, আটককৃত গরু সহ চোরকে পাথরডুবি ইউপি চ‍েয়ারম‍্যানের সাথে কথা বলে সংশ্লিষ্ট ইউপি সদস‍্য মোকাদ্দেস হোসেনের জিম্মায় ইউনিয়ন পরিষদে পাঠানো হয়েছে। এদিকে পাথরডুবি ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুস সবুর ঘটনার সত‍্যতা নিশ্চিত করে জানান, গরু সহ চোরকে পরিষদে আটকে রাখা হয়েছে। পরে বসে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। এ বিষয়ে ভুরুঙ্গামারী থানার ওসি আলমগীর হোসেন জানান, এ বিষয়ে কোনো অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.