কুষ্টিয়ায় কলেজ ভবনে পিয়নের ঝুলন্ত লাশ

কুষ্টিয়ার কুমারখালীর মনিরুল ইসলাম নামে কলেজের এক পিয়নের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।গেল সোমবার রাত ১০টার দিকে উপজেলার বাঁশগ্রাম আলাউদ্দিন আহাম্মেদ ডিগ্রি কলেজের তৃতীয় তলার তালাবদ্ধ রুম থেকে তার লাশ করা

হয়।নিহত মনিরুল ইসলাম চাপড়া ইউনিয়নের ইছাখালী গ্রামের মৃত নিয়াদ আলীর ছেলে। তিনি বাঁশগ্রাম আলাউদ্দিন আহাম্মেদ ডিগ্রি কলেজে পিয়ন হিসেবে কর্মরত ছিলেন।স্থানীয়রা জানায়, দীর্ঘদিন যাবত মনিরুল পারিবারিকভাবে অশান্তিতে

ছিলেন। প্রায়ই পারিবারিক কলহের বিষয়গুলো তিনি তার কাছের মানুষদের কাছে আক্ষেপ করতেন। সোমবার কলেজ ছুটির পর মনিরুল বাড়িতে না ফিরলে তার ছেলে বিভিন্ন জায়গায় খোঁজ করেন। কোথাও না পেয়ে কলেজে গিয়ে প্রশাসনিক

ভবনের তৃতীয় তলা ভিতর থেকে আটকানো অবস্থায় দেখতে পেয়ে কলেজ কর্তৃপক্ষের সহায়তায় দরজা ভেঙে ভিতরে প্রবেশ করে উপরে উঠার লোহার সিঁড়ির সঙ্গে তার বাবার গলায় ফাঁস লাগানো ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পান। পরে পুলিশ

গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করেন।কুমারখালী থানার ওসি কামরুজ্জামান তালুকদার সাংবাদিকদের জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট আসার পর মৃত্যুর কারণ জানা যাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.