সন্তানকে বাঁচাতে খালি হাতে বাঘের সঙ্গে লড়াই করলেন মা

১৫ মাসের শিশুপুত্রের মন ভোলানোর জন্য তাকে নিয়ে গভীর জঙ্গলে গিয়েছিলেন মা। সেই সময়ই শিশুপুত্রের উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে বাঘ। সন্তানকে বাঁচাতে খালি হাতেই বাঘের সঙ্গে লড়ে যান সেই নারী। সোমবার (৫ সেপ্টেম্বর) ভারতের মধ্যপ্রদেশের উমারিয়া জেলার বান্ধবগড় অভয়ারণ্যে ঘটেছে এই চাঞ্চল্যকর ঘটনা। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানায়, বাঘের সঙ্গে অসম লড়াইয়ে গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ওই মা। তবে সামান্য চোটআঘাত পেলেও বিপদমুক্ত তার ১৫ মাসের সন্তান।

জেলা প্রশাসন জানিয়েছে, অর্চনা চৌধুরী নামের ২২ বছর বয়সী ওই তরুণী ১৫ মাসের ছেলেকে নিয়ে জঙ্গলে ঘুরতে যান। সেই সময়ই ছেলেটির উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে বাঘ। সন্তানকে বাঁচাতে খালি হাতেই বাঘের সঙ্গে লড়াই করেন অর্চনা। হাসপাতালে শুয়ে অর্চনা জানান, তার ছেলেকে তার সামনে থেকে ছিনিয়ে নিয়ে বাঘটি প্রায় পাঁচ মিটার দূরে গিয়ে লাফ দেয়। সেই অবস্থায় বাঘটিকে নিরস্ত করতে খালি হাতেই বাঘটির পিঠে মুখে মারতে থাকেন তিনি।

বাঘটি তখন তার ছেলেকে ছেড়ে তার উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। তার চিৎকার শুনে গ্রামবাসীরা দৌড়ে এলে বাঘটি গভীর জঙ্গলের মধ্যে ঢুকে যায়।বাঘের আক্রমণে অর্চনার নাকের হাড় ভেঙে গিয়েছে। পিঠে এবং পেটে গুরুতর আঘাত লেগেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.