ভাতিজার লাশ দেখেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়লেন চাচা!

ফেনী সদর উপজেলায় আহম্মেদ জাবের নামে এক যুবক সোমবার দুপুরে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় মারা যান। নিহতের চাচা রবিউল হক রবি ভাতিজার মরদেহ দেখে তিনিও কিছুক্ষণ পর মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন।নিহত জাবের কালিদহ

ইউপির পূর্ব গোবিন্দপুর মসজিদ বাড়ির শাহজাহান সাজুর বড় ছেলে।জানা যায়, আহম্মেদ জাবের দুপুরে চট্টগ্রামে ঘুরতে যাওয়ার পথে কুমিরায় তার মোটরসাইকেলকে একটি দ্রুতগামী ট্রাক চাপা দিলেই শরীর থেকে মাথা আলাদা হয়ে তিনি

ঘটনাস্থলেই মারা যান। তার মরদেহ সন্ধ্যা সাতটার দিকে বাড়িতে নিয়ে আসলে একই বাড়ির চাচা রবিউল হক রবি ছিন্ন ভিন্ন মরদেহ দেখেই মুর্ছা যান। এর কিছুক্ষণ পরই তিনিও মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন।স্থানীয় মিরাজুল ইসলাম মামুন বলেন,

এমন মর্মান্তিক ঘটনা এলাকায় এই প্রথম। তাদের মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। ফেনী শহরের শান্তি কোম্পানি সড়কে বসবাস করা জাবেরের পরিবার একমাত্র ছেলেকে হারিয়ে দিশেহারা। এদিকে আকস্মিক মৃত্যুতে হতবিহ্বল

চাচার পরিবার। আহম্মেদ জাবেরের প্রবাসী বাবা দেশে ফিরলে পূর্ব গোবিন্দপুর মসজিদ বাড়ি প্রাঙ্গণে জানাজা ও পারিবারিক কবরস্থানে মরদেহ দাফন করা হবে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে কালিদহ ইউপি চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেন ডালিম বলেন, এ ধরনের ঘটনা সত্যিই বেদনাদায়ক। ভাতিজার লাশ দেখেই তিনি অজ্ঞান হয়ে পড়েন। এর অল্প কিছুক্ষণের মধ্যেই পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.