জুমার নামাজে যাওয়ার পথে বিস্ফোরণে শীর্ষ তালেবান ধর্মীয় নেতাসহ নিহত অন্তত ১৫

আফগানিস্তানের পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর হেরাতে একটি মসজিদে বিস্ফোরণে তালেবানপন্থি এক ধর্মীয় নেতাসহ অন্তত ১৫ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও অনেকে। শুক্রবার (২ সেপ্টেম্বর) জুমার নামাজের সময় গুজরগাহ মসজিদে এ হামলার ঘটনা ঘটেছে। খবর আল জাজিরার।

হেরাত পুলিশের মুখপাত্র মাহমুদ রাসুলি বলেছেন, মুজিব রহমান আনসারি কয়েকজন রক্ষী ও বেসামরিক লোকদের নিয়ে মসজিদের দিকে যাওয়ার পথে নিহত হয়েছেন। বিস্ফোরণে ঠিক কতজন হতাহত হয়েছে তা জানাননি তিনি।

তবে ঘটনাস্থলের একটি সূত্র আল জাজিরাকে জানিয়েছে, এতে ১৫ জন নিহত হয়েছেন। আরও অন্তত ২১ জন আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন স্থানীয় এক চিকিৎসক।রাসুলি বলেন, ইমাম সাহেব বাড়ি থেকে মসজিদে যাওয়ার সময় এ হামলার ঘটনা ঘটে। এক আত্মঘাতী বোমা হামলাকারী তার হাতে চুম্বন করার সময় নিজেকে উড়িয়ে দেয়।

তালেবান মুখপাত্র জাবিহুল্লাহ মুজাহিদ প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন, বোমা হামলার নেপথ্যে থাকা অপরাধীদের অবশ্যই শাস্তি দেওয়া হবে। এক টুইটে তিনি বলেছেন, দেশের বলিষ্ঠ ও সাহসী এক ধর্মীয় পণ্ডিত নৃশংস হামলায় শহীদ হয়েছেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়া ছবিতে মসজিদ প্রাঙ্গণের চারপাশে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা রক্তাক্ত মরদেহ পড়ে থাকতে দেখা গেছে। তাৎক্ষণিকভাবে কেউ এ হামলার দায় স্বীকার করেনি।মুজিব রহমান আনসারি গত জুনের শেষের দিকে

হাজার হাজার পণ্ডিত ও প্রবীণদের এক বিশাল সমাবেশে তালেবানের পক্ষে জোরালোভাবে কথা বলেছিলেন। তালেবান প্রশাসনের বিরোধীদের তীব্র ভাষায় নিন্দা করেছিলেন তিনি।তালেবানের দাবি, তারা গত এক বছরে আফগানিস্তানে নিরাপত্তা

পরিস্থিতির যথেষ্ট উন্নতি করেছে। কিন্তু সাম্প্রতিক মাসগুলোতে দেশটিতে বেশ কয়েকটি বিস্ফোরণ ঘটেছে, যার কয়েকটি হয়েছে নামাজের সময় মসজিদ লক্ষ্য করে। এসব হামলার দায় স্বীকার করেছিল জঙ্গি গোষ্ঠী আইএস।

Leave a Reply

Your email address will not be published.