প্রেমের সম্পর্ক ভেঙে গেলে মেনে চলুন এই নিয়ম

সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে আসার পর- সেই মানুষটির সঙ্গে দূরত্ব বজায় রাখাটা খুব জরুরি। যত কষ্টই হোক না কেন তাকে কোনো ধরনের এসএমএস, ফেসবুকে মেসেজ করা অথবা ফোন করা ঠিক নয়। বিচ্ছেদের পর স্বাভাবিক হতে যা

করবেন:সম্ভব হলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম থেকে পুরোনো প্রেমিক বা প্রেমিকাকে বাদ দিন। কল, এসএমএস বা দেখা-সাক্ষাৎ যে চিরদিনের জন্য বন্ধ করে দেবেন, এমন নয়। নিজেকে স্বাভাবিক করতে সাময়িকভাবে এটি করতে হবে।

কাঁদুন যত খুশি তত কাঁদুন। কাঁদলে মন কিছুটা হালকা হবে। যতই সময় সামনের দিকে এগিয়ে যাবে, তত আপনি স্বাভাবিক হতে শুরু করবেন। তবে তার আগে যা ঘটেছে তা মেনে নিতে শিখুন। হয়তো বিচ্ছেদ আপনি চাননি, তাহলে বিচ্ছেদ নিয়ে বেশি ভাবতে যাবেন না।

কী করলে কী হতে পারত, কিংবা আপনি হয়তো অমুক কাজটি করলে সম্পর্ক ভালো রাখতে পারতেন, এই জাতীয় চিন্তাভাবনা মাথায় এলে দ্রুত ঝেড়ে ফেলুন। কারণ, আপনি যতক্ষণ সম্পর্কের মাঝে ছিলেন, ততক্ষণ আপনার কোনো কাজ হয়তো সম্পর্কের ওপর প্রভাব ফেলত কিন্তু এখন সেটি আর পড়বে না। তাই যত দ্রুত সম্ভব বিচ্ছেদকে মেনে নিন।

কে জানে আপনি হয়তো সম্পর্কের মাঝে নিজের বড় একটি সত্তাকে হারিয়ে ফেলেছেন। বিচ্ছেদের ইতিবাচক দিক হিসেবে আপনার সেই হারিয়া যাওয়া সত্তাকে খুঁজে পাওয়ার চেষ্টা করুন। আপনার শখগুলোর একটি লিস্ট করুন। তারপর এক এক করে সেগুলো পূরণের উদ্যোগ নিন।

নতুন নতুন জিনিসের প্রতি নিজের ভালো লাগা আবিষ্কার করুন।নতুন কোনো সম্পর্কে জড়ানোর আগে নিজের সঙ্গে বোঝাপড়া করুন। ভুলেও না ভেবে-চিন্তে নতুন কোনো সম্পর্কে জড়িয়ে পড়বেন না। পুরোনোকে ভুলতে গিয়ে ভুল নতুনকে বেছে নেবেন না। যদি কোনো কারণে নতুন সম্পর্কও ভেঙে যায়, তখন মূলত আপনাকে দুটি বিচ্ছেদ নিয়েই

হতাশায় ভুগতে হতে পারে।নিজেকে প্রশ্ন করুন, আপনি আসলে ঠিক কোন ধরনের সম্পর্কে জড়াতে চান, সঠিক উত্তর পেলে তবেই নতুন সম্পর্ক গড়তে পারেন।

সূত্র: সাইকোলজি.কম

Leave a Reply

Your email address will not be published.