বোনকে বাঁচাতে গিয়ে ডুবে মরলো ২ জনই

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলায় পানিতে ডুবে দুই বোনের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার বিকেলে উপজেলার ধরখার ইউনিয়নের বনগজ গ্রামে ঘটনাটি ঘটে।মৃত দুই শিশু হলো- সামিয়া (৩) ও ইলমা (২)। তারা সম্পর্কে চাচাতো বোন।

সামিয়া ওই গ্রামের নুরুল ইসলাম ও ইলমা জুয়েল মিয়ার মেয়ে।জানা গেছে, সামিয়া ঘর থেকে মোবাইল নিয়ে পরিবারের লোকজনের অগোচরে বাড়ির পাশে খেলতে যায়। এ সময় ইলমাও তার সঙ্গে যায়। একপর্যায়ে ইলমা পুকুরে পড়ে যায়। ইলমাকে বাঁচাতে সামিয়াও পুকুরে নামে। দুইজনেই পানিতে তলিয়ে যায়।

ঘরে মোবাইল খুঁজে না পেয়ে পরিবারের লোকজন সামিয়ার খোঁজে বের হয়। খোঁজাখুজির একপর্যায়ে পুকুর পাড়ে গিয়ে দেখে মোবাইল পড়ে আছে। কিছুক্ষণ পরে পুকুরে দুইজনের লাশ ভাসতে দেখে। পরিবারের লোকজন তাদের উদ্ধার করে

আখাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। হাসপাতালের চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।মৃত সামিয়ার চাচা মিটন সরকার বলেন, সামিয়া ও ইলমা সম্পর্কে আপন চাচাতো বোন। সামিয়া ঘর থেকে মোবাইল নিয়ে বের হয়ে যায়।

এ সময় ইলমাও তার সঙ্গে ছিল। তারা দুইজন পুকুরের পানিতে ডুবে মারা যায়।এ ব্যাপারে ধরখার পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ বিমল চক্রবর্তী বলেন, ঘটনাটি শুনেছি। বিস্তারিত জানার জন্য ঘটনাস্থলে যাচ্ছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.