নারী না পুরুষ, কারা বেশি পরকীয়ায় জড়ান?

পরকীয়া মানেই অধিকাংশ ক্ষেত্রে অভিযোগের আঙুল ওঠে পুরুষের দিকে। পরকীয়া কারা করেন? কেনই বা করেন? এই সব প্রশ্নের উত্তর খুঁজে পাওয়া সহজ নয়। তবে হালের একটি সমীক্ষা বলছে, পুরুষ নয়, পরকীয়ায় বেশি আগ্রহী নারীরা। আর যৌনজীবনে একঘেয়েমির কারণেই সে দিকে ঝুঁকছেন নারীরা। সাধারণত মনে করা হয়, পুরুষেরা পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েন, কারণ তাদের সঙ্গীরা যৌনতার প্রতি আগ্রহ হারিয়ে ফেলে। তবে বিজ্ঞান অন্য কথা বলছে। বিজ্ঞান বলছে, নারীদের সারা জীবন একই সঙ্গীর সঙ্গে থাকতে বেশি সমস্যা হয়। তারা পুরুষদের তুলনায় যৌন সম্পর্কে অনেক বেশি রোমাঞ্চ এবং বৈচিত্র পছন্দ করেন।

নৃবিজ্ঞানী এবং আনট্রু নামক বইয়ের লেখক, ওয়েডসডে মার্টিন এই বিষয় নানা গবেষণা করেন। তিনি বলেন, একটি বয়সের পর নারীদের যৌন চাহিদা কমে যায়, এমনটা নয়। তবে তারা একই রকম যৌনজীবন কাটাতে পছন্দ করেন না, বৈচিত্রের খোঁজ করে। নেভাডা বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে, একবিবাহ পুরুষদের তুলনায় নারীদের যৌন ইচ্ছাকে কমিয়ে দেয়। ‘গ্লিডেন’ নামক একটি বিবাহ-বহির্ভূত ডেটিং অ্যাপ সম্প্রতি এই সমীক্ষাটি চালিয়েছে।

এই অ্যাপটি মূলত তৈরি হয়েছে নারীদের জন্য। ৩০ থেকে ৬০ বছর বয়সি শহুরে, শিক্ষিত, আধুনিকা, কর্মরতা নারীদের উপর সমীক্ষা চালিয়ে দেখা গিয়েছে, যে প্রায় ৪৮ শতাংশ মহিলা পরকীয়া সম্পর্কে রয়েছেন। আর এই নারীদের একটি বড় অংশই একটি সন্তানের মা-ও বটে।

সূত্র: আনন্দবাজার

Leave a Reply

Your email address will not be published.