‘রিতু কুণ্ডু’ থেকে ‘আয়শা জাহান’ নাম রাখলেন ইসলাম গ্রহণ করা সেই বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষিকা

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) লোকপ্রশাসন বিভাগের শিক্ষিকা ‘রিতু কুণ্ডু’ ধর্ম পরিবর্তন করে ইসলাম গ্রহণের পর এবার নিজের নাম পরিবর্তন করে ‘আয়শা জাহান’ রেখেছেন। ইতোমধ্যে তার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট আয়েশা জাহান (রিতু) নাম দিয়ে খোলা হয়েছে। তিনি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে (ফেসবুক) বেশ সক্রিয়। ইসলাম ও নানান বিষয়ে লেখালেখি করতে দেখা যায় তাকে। সোমবার নোটারি পাবলিক ও মঙ্গলবার ঢাকা ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টের প্রথম শ্রেণির ম্যাজিস্ট্রেট দেবদাশ চন্দ্র অধিকারীর কাছে দেওয়া হলফনামার মাধ্যমে স্বেচ্ছায় নাম পরিবর্তন করেন রিতু কুণ্ডু ।

ওই শিক্ষিকা জানান, ‘আজ আমার যে নতুন পরিচয় আয়শা জাহান নামের মাধ্যমে হয়েছে, সেজন্যও আল্লাহর কাছে শুকরিয়া আদায় করছি। এখন থেকে আমি আয়শা জাহান নামে পরিচিত হব।’ ২০২১ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দেওয়া এক ভিডিওবার্তার মাধ্যমে ইসলাম ধর্ম গ্রহণের কথা জানান রিতু কুণ্ডু। তার বাড়ি নীলফামারীর নালশমারী উপজেলায়। তার বাবার নাম দুলাল কান্তি কুণ্ডু ও মা মালা কুণ্ডু। বর্তমানে তিনি জবির লোকপ্রশাসন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক।

আয়শা জাহান (বর্তমান নাম) নীলফামারী সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে মাধ্যমিক ও নীলফামারী সরকারি কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করেন। এরপর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) লোকপ্রশাসন বিভাগ থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন। ২০১৩ সালে তিনি রংপুর বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের লোকপ্রশাসন বিভাগে প্রভাষক হিসেবে নিয়োগ পান। ২০১৭ সাল থেকে তিনি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের লোকপ্রশাসন বিভাগে শিক্ষকতা করছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.