কাতার বিশ্বকাপে নিরাপত্তা দেবে পাকিস্তানি সেনাবাহিনী

আর মাত্র ৮৮ দিন পরই পর্দা উঠবে দ্য গ্রেটেস্ট শো অন খ্যাত ফুটবল বিশ্বকাপের। চলতি বছরের ২০ নভেম্বর মধ্যপ্রাচ্যের দেশ কাতারে বসবে টুর্নামেন্টটির ২২তম আসর। ফুটবল মহাযজ্ঞে নিরাপত্তা প্রদান করবে পাকিস্তান। সেই লক্ষ্যে কাতার ও পাকিস্তানের মধ্যে সমঝোতার খসড়া অনুমোদন দেয় পাকিস্তানের মন্ত্রিসভা। গতকাল সোমবার ২২ আগস্ট বিষয়টি নিশ্চিত করে পাকিস্তানের তথ্যমন্ত্রী। খবর রয়টার্স।

আজ মঙ্গলবার ২৩ আগস্ট কাতার সফরে যাচ্ছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরিফ। উচ্চ পর্যায়ের এই সফরের আগের দিনই বিশ্বকাপে নিরাপত্তার জন্য পাকিস্তানে সৈন্যদের কাতারে পাঠানোর ব্যাপারে সমঝোতার অনুমোদন দিল মন্ত্রীসভা। অবশ্য দেশটির প্রধানমন্ত্রীর সফর চলাকালে এই বিষয়ে চুক্তি স্বাক্ষর হবে কিনা তা এখনো জানা যায়নি।

এদিকে রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, কাতারের পক্ষ থেকে পাকিস্তানের কাছে বিশ্বকাপের নিরাপত্তা সংক্রান্ত বিষয়ে সহায়তা চাওয়া হয়েছিল। সেজন্য পাকিস্তানের সামরিক বাহিনী দুই দেশের মধ্যে এই বিষয়ে একটি চুক্তি স্বাক্ষরের প্রস্তাব দেয়। এখন পর্যন্ত পাকিস্তানের কাছ থেকে নিরাপত্তা সহায়তা চাওয়ার ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি বিশ্বকাপের আয়োজকরা। এক্ষেত্রে কাতার সরকারের মিডিয়া অফিসের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তারা সাড়া দেয়নি বলে জানিয়েছে রয়টার্স।

জানা গেছে, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শরিফ কাতার সফরে বিশ্বকাপের জন্য নির্মিত স্টেডিয়াম পরিদর্শন করবেন বলে জানা গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.