মুন্সিগঞ্জে বিকট শব্দে সেপটিক ট্যাংক বিস্ফোরণে ১৪ বছরের কিশোরী আফরোজা আক্তার নিহত হয়েছেন।
শুক্রবার বিকেল ৬টার দিকে সদর উপজেলার মানিকপুর এলাকায় অন্তু আক্তারের বাড়ির নিচ তলায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত আফরোজা আক্তার কুড়িগ্রামের নন্দ দুলাল এলাকার মো. আওয়ালের বড় মেয়ে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, তিন তলা ভবনের নিচ তলায় থাকেন অটোচালক আওয়াল। বিকেল ৬টার দিকে হটাৎ বিকট শব্দে সেফটিক ট্যাংক বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এ সময় আশপাশের লোকজন এসে কিশোরী আফরোজা আক্তারকে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতর বাবা মো. আওয়াল বলেন, আমি যাত্রী নিয়ে মুক্তারপুর যাচ্ছিলাম। এমন সময় দুর্ঘটনার খবর পেয়ে বাড়িতে ফিরে দেখি সেপটিক ট্যাংক বিস্ফোরণে মেয়ে মারা গেছে। পাশেই রান্না ঘরে থাকায় আমার স্ত্রী ও ছোট মেয়ে বেঁচে গেছেন।

মুন্সিগঞ্জ সদর থানার ওসি তারিকুজ্জামান জানান, মানিকপুর ভাড়া বাড়িতে কিশোরী আফরোজা আক্তার টিভি দেখার সময় সেপটিক ট্যাংক বিস্ফোরণ হলে সে মারা যায়। তবে রুমের বাইরে থাকায় তার ছোট বোন প্রাণে বেঁচে যায়। এ সময় ওই কিশোরীর মা রুমি বেগম রান্না ঘরে করছিলেন। এ ঘটনায় কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.