খুলনার পাইকগাছায় সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রীর উপস্থিতিতে পকেটকাটার ঘটনায় সেই পকেটমারকে আটক করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার দুপুরে জেলার রুপসা এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়।এর আগে, মঙ্গলবার সকালে পাইকগাছা

উপজেলার কপিলমুনি বধ্যভূমি এলাকায় ১৫ মিনিটের ব্যবধানে ছয়জনের পকেট থেকে মানিব্যাগ, টাকা ও মোবাইল চুরি হয়।পাইকগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জিয়াউর রহমান বলেন, পকেটমারকে আটক করা হয়েছে। থানায় এনে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

জানা গেছে, মঙ্গলবার সকালে কপিলমুনি বধ্যভূমি স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ। এ সময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন এমপি আখতারুজ্জামান বাবু, কপিলমুনি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কওসার আলী জোয়ার্দারসহ নেতাকর্মীরা।

শ্রদ্ধা জানানো শেষে বধ্যভূমি ত্যাগ করেন প্রতিমন্ত্রী। এরপর অনেকে তাদের পকেটে হাত দিয়ে অবাক হন। কিছু সময়ের মধ্যে কপিলমুনি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি যুগল কিশোর দে’র পকেট থেকে ১৮০০ টাকা, সাংবাদিক তপন

পালের পাঁচ হাজার টাকা, কপিলমুনি ইউপি চেয়ারম্যান কওসার আলী জোয়ার্দারের ৯ হাজার টাকা খোয়া যায়। এ সময় কপিলমুনি প্রেস ক্লাবের সেক্রেটারি আবদুর রাজ্জাক রাজু ও উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি সমীরণ সাধুর মোবাইল ফোনও খোয়া যায়।

সাংবাদিকদের ধারণ করা একাধিক ছবিতে দেখা যায়, কপিলমুনি আওয়ামী লীগের সভাপতি যুগল কিশোর দে’র পাঞ্জাবির পকেটে কৌশলে হাত ঢুকিয়ে দিয়েছেন মন্ত্রীর সামনে দাঁড়িয়ে থাকা খর্বাকৃতি প্রকৃতির মধ্যবয়স্ক মাস্ক পরা এক ব্যক্তি। পুলিশ সদস্য উপস্থিত থাকলেও সুকৌশলে নিজের কাজ করছেন পকেটমার।

Leave a Reply

Your email address will not be published.