চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে এক গৃহবধূকে দলবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় দুইজনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।শনিবার বিকেলে র‍্যাবের চান্দগাঁও কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান র‍্যাব-৭ এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল এম এ ইউসুফ। এর আগে, একই দিন ভোরে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলেন- মো. সাদ্দাম হোসেন ও মো. জাহেদ মোস্তফা।

র‌্যাব সংবাদ সম্মেলনে জানায়, ভুক্তভোগী গৃহবধূ সীতাকুণ্ডের একটি বাসায় ভাড়া থাকেন। গত ২৩ থেকে ২৪ দিন আগে তার স্বামী পুলিশের হাতে আটক হয়ে জেলহাজতে রয়েছেন। এ কারণে ঐ নারী দুই সন্তানকে নিয়ে তার বাবার বাড়ি মুরাদপুরে চলে যান।

গত ২৮ জুলাই ভুক্তভোগী নারীর ভাড়া বাসা থেকে প্রায় এক লাখ ৫০ হাজার টাকার বিভিন্ন মালামাল নিয়ে যায় দুষ্কৃতকারীরা। পরে এসব মালামাল আনার জন্য তিনি তার ভাগনে ও ফুফাতো ভাইয়ের ছেলেকে নিয়ে ঐ দিন রাতে বারবকুন্ড ইউনিয়ন পরিষদ সংলগ্ন রাস্তায় পৌঁছালে তাদের মারধর করে দুষ্কৃতকারীরা। পরে ঐ ইউনিয়নের মকবুল রহমান জুট মিলের কাছে রেললাইনের একটি ঘরে আটক রেখে ভুক্তভোগীকে

দলবদ্ধ ধর্ষণ করে দুষ্কৃতকারীরা।র‍্যাব-৭ এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল এম এ ইউসুফ বলেন, ভুক্তভোগী গৃহবধূকে উদ্ধার করে সীতাকুণ্ড উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী নারী বাদী হয়ে সীতাকুণ্ড থানায় চারজনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা একজনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন।

তিনি আরো বলেন, শনিবার ভোরে অভিযান পরিচালনা করে প্রধান আসামি মো. সাদ্দাম হোসেন ও তিন নম্বর আসামি মো. জাহেদ মোস্তফাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত সাদ্দামের বিরুদ্ধে অস্ত্র, ডাকাতি ও ছিনতাইসহ বিভিন্ন অপকর্মের ছয়টি মামলা রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.