হিন্দু ধর্মাবলম্বী নাজমা ছিলেন। ভালোবাসতেন দুবাই প্রবাসী মাকসুদকে। সেই ভালোবাসার টানে ইসলাম ধর্মগ্রহণ করেন তিনি। পরে বিয়েও করেন তারা। তাদের ঘর আলো করে আসে মেয়ে মোহনা। লাকসাম স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সংলগ্ন একটি বাসায় ভাড়া থাকতেন তিনি। মঙ্গলবার দুবাই থেকে দেশে ফিরছিলেন স্বামী মাকসুদ। কিন্তু স্বামী বাসায় পৌঁছানোর আগেই স্ত্রী নাজমা আত্মহত্যা করেন। ঘটনাটি ঘটেছে কুমিল্লার লাকসামে।
জানা যায়, মঙ্গলবার দুবাই থেকে দেশে ফিরছিলেন নাজমার স্বামী মাকসুদ। সকালে মাকসুদের স্বজনদের সঙ্গে একমাত্র মেয়ে মোহনাও বিমানবন্দর থেকে তাকে বাসায় আনতে ঢাকায় যান।

সন্ধ্যা ৬টার দিকে বিমানবন্দরে নামেন মাকসুদ। কিন্তু দুবাই থেকে স্বামী বাসায় পৌঁছানোর আগেই নাজমা আত্মহত্যা করেন। লাকসাম থানার ওসি মেজবাহ উদ্দিন ভূঁইয়া জানান, মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট এলে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.