নাটোরের হরিশপুরে তরকারিতে তেল বেশি দেওয়ায় মুক্তি বেগমকে (৩০) কুপিয়ে হাতের সাতটি আঙুল কেটে দিয়েছে স্বামী আব্দুল হাই।
আহত মুক্তি বেগমকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গত রোববার দুপুরে সদর উপজেলার বড় হরিশপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যানপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানান, তরকারি রান্না করার সময় তেল বেশি দেওয়ার মতো তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে আব্দুল হাই ক্ষিপ্ত হয়ে ধারালো হাসুয়া দিয়ে স্ত্রীকে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে দুই হাতের সাতটি আঙুল কেটে দেয়। মুখসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। স্বজনরা দ্রুত তাকে উদ্ধার করে নাটোর আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে। পরে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. রেজা উন নবী জানান, তার হাতের আঙুলের অবস্থা খুবই খারাপ। একটা হাত ভেঙে গেছে। জরুরি ভিত্তিতে অপারেশন করা না হলে আঙুলগুলো হারাতে হবে। নাটোর থানার ওসি নাসিম আহমেদ বলেন, ঘটনাটি জানার পর পরই আমি মুক্তি বেগমের সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করেছি। মামলার প্রস্তুতি চলছে। অভিযুক্ত আব্দুল হাইকে গ্রেফতারের জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.