কুমিল্লায় ভালোবেসে বিয়ে করায় স্বজনরা মেনে না নেয়ায় ফেসবুকে লাইভে এসে স্বামী-স্ত্রী দুজনই বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন।
সোমবার রাতে জেলার আদর্শ সদর উপজেলার দুর্গাপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। তারা হলেন- আদর্শ সদর উপজেলার দৌলতপুর এলাকার ফরহাদ আহমেদ ভূঁইয়ার ছেলে সাজ্জাদ ভূঁইয়া বিজয় ও তার স্ত্রী নূরুন্নাহার সামিয়া। তিনি বলরামপুর এলাকার ব্যবসায়ী মাসুদুর রহমানের মেয়ে।

বিজয়ের বাবা ফরহাদ আহমেদ ভূঁইয়া বলেন, আমার ছেলে বিজয়ের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে সামিয়ার। পরিবারের অমতে তারা পালিয়ে বিয়ে করেন। সামিয়া অপ্রাপ্তবয়স্ক হওয়ায় বিষয়টি মেনে নেননি তার পরিবারের লোকজন। এ নিয়ে বিজয়ের বিরুদ্ধে অপহরণ মামলা করেন তারা। ওই মামলায় বেশ কিছুদিন জেল খাটেন বিজয়। এরপর আদালতে বিজয়ের সঙ্গে পালানোর কথা স্বীকার করে জবানবন্দি দেন সামিয়া। পরে বিজয়কে জামিন দিয়ে সামিয়াকে তার বাবার কাছে হস্তান্তর করে আদালত।

এদিকে, মেয়েকে স্কুলে যাওয়া বন্ধ করে দিয়ে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করেন সামিয়ার পরিবারের লোকজন। নির্যাতন সইতে না পেরে রোববার বিজয়ের কাছে চলে আসেন সামিয়া। এ ঘটনার পর মেয়েকে ফোন করে বিভিন্ন ভয়ভীতি দেখায় সামিয়ার পরিবার। এরপর দুজন মিলে আত্মহত্যার সিদ্ধান্ত নেন। পরে সোমবার রাতে ফেসবুকে লাইভে এসে বিস্তারিত ঘটনা তুলে ধরে স্বামী-স্ত্রী বিষপান করেন। টের পেয়ে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়। বর্তমানে দুজনই শঙ্কামুক্ত।

কুমিল্লা কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সহিদুর রহমান বলেন, বিষয়টি শোনার পর ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। স্বামী-স্ত্রী দুজনই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.