নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী উপজেলায় এক গৃহবধূকে (৩২) ভিডিও প্রকাশের ভয় দেখিয়ে নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। গ্রেপ্তার মোরশেদ আলম রুবেল (৩৫) উপজেলার সোনাইমুড়ী পৌরসভার আটিয়াবাড়ী এলাকার মৃত আব্দুল মান্নানের ছেলে। শনিবার (২৩ জুলাই) দুপুরে আসামি রুবেলকে নোয়াখালী চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হবে। এর আগে গতকাল শুক্রবার দুপুর আড়াইটার দিকে সোনাইমুড়ীর পৌরসভার আটিয়াবাড়ী এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারের বিষয়টি গতকাল শুক্রবার রাত ১১টায় পুলিশ সুপার কার্যালয় থেকে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

নোয়াখালী জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-ডিবি) সাইফুল ইসলাম বলেন, আসামি রুবেলের সঙ্গে পাঁচ মাস আগে ওই গৃহবধূর মুঠোফোনে পরিচয় হয়। পরে চৌমুহনী থ্রি-স্টার হোটেলে এনে ওই নারীর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করেন এবং গোপনে ভিডিও ধারণ করে রাখেন। পরবর্তীতে ভিডিও প্রকাশের ভয় দেখিয়ে বিভিন্ন সময়ে ৮৫ হাজার টাকা, ১টি স্বর্ণের চেইন ও ১ জোড়া কানের দুল হাতিয়ে নেন। আরও টাকা দেওয়ার জন্য ওই নারীকে চাপ দিতে থাকলে তিনি নোয়াখালী পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে লিখিত অভিযোগ করেন।

নোয়াখালী পুলিশ সুপার মো. শহীদুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, প্রতারণার শিকার ওই নারীর লিখিত অভিযোগটি জেলা গোয়েন্দার ওসিকে তদন্তের ভার দিয়ে অপরাধীকে আইনের আওতায় আনার নির্দেশ দেই। ডিবি পুলিশ তদন্ত করে ঘটনার সত্যতা পেয়ে আসামি রুবেলকে হাতিয়ে নেওয়া ১টি স্বর্ণের চেইন, ১ জোড়া কানের দুল ও ভিডিও ধারণ করা ফোনসহ গ্রেপ্তার করে। এ ঘটনায় শনিবার সকালে ভুক্তভোগী নারী বাদী হয়ে পর্নোগ্রাফি আইনে মামলা দায়ের করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.