প্রেমিকার অন্যত্র বিয়ে হওয়ায় ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন সাজিদুল ইসলাম সাজিদ নামে এক যুবক।
শনিবার সকালে রংপুর নগরীর মধ্য ঘাঘটপাড়া এলাকার থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। ১৯ বছর বয়সী সাজিদ একই এলাকার রবিউল ইসলামের ছেলে। তিনি রংপুর টিএমএসএস টেকনিক্যাল কলেজের কম্পিউটার সাইন্স বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র ছিলেন।

তাজহাট থানার ওসি নাজমুল কাদের জানান, সম্প্রতি সাজিদের প্রেমিকার অন্যত্র বিয়ে হয়। এরপর থেকেই তিনি মানসিকভাবে বিষণ্নতায় ভুগছিলেন। শুক্রবার রাত ১০টার দিকে নিজ কক্ষে ঘুমাতে যান তিনি। শনিবার ভোর ৬টায় ঘুম থেকে ওঠার জন্য সাজিদকে ডাকাডাকি করেন পরিবারের সদস্যরা। কিন্তু সাড়াশব্দ না পেয়ে ঘরের জানালা খুলে দেখেন ফ্যানের সঙ্গে ঝুলছেন সাজিদ।

ভোর ৪টার দিকে সাজিদ নিজের ফেসবুকে লিখেন, ‘এ পৃথিবীটা না অনেক বড় সুন্দর, শুধু তোমার জন্য চলে গেলাম আল্লাহর কাছে। খারাপ হওয়া ঠিক দুনিয়াটা যত বড়, তোমাকে ওতটাই ভালোবাসি। এত বড় পৃথিবীটা তুমি একলা সব কি করলা। বিয়ে করে আমাকে একটা বার জানাইলা না। কি এমন দোষ করেছিলাম, এত বড় শাস্তি দিলা, ভাল থাকো। আল্লাহ হাফেজ।’ এর আগে, ১৯ জুলাই ফেসবুকে লেখেন, ‘তুমি কোথায় আছো, কেমন আছো জানি না। তুমি চলে গেছো ৫ দিন হয়ে গেল কিন্তু এখনো বিশ্বাস হচ্ছে না।’

ওসি জানান, প্রেমিকার বিয়ে হওয়ায় সাজিদ আত্মহত্যা করেছেন। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। কোনো অভিযোগ না থাকায় মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.