নারায়ণগঞ্জ ফতুল্লায় রফতানিমুখী একটি পোশাক তৈরি কারখানার নারী নিরাপত্তারক্ষীকে ধর্ষণের অভিযোগে একই প্রতিষ্ঠানের পুরুষ নিরাপত্তারক্ষীর সুপাই ভাইজার ইয়াকুব আলীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ গ্রেফতারকৃত ইয়াকুব আলী দিনাজপুর জেলার পার্বর্তীপুর থানার দক্ষিণ শালন্দার মৃত আকালু শেখের ছেলে ও ফতুল্লা মাসদাইরস্থ শোভন গার্মেন্টেসের পুরুষ নিরাপত্তারক্ষী সুপার ভাইজার।

এ ঘটনায় ধর্ষণের শিকার নারী বাদী হয়ে শুক্রবার ফতুল্লা মডেল থানায় মামলা করেন।জানা যায়, বাদীর স্বামী হোটেলে কাজ করে এবং বাদী শোভন গার্মেন্টেসে নারী নিরাপত্তারক্ষী হিসেবে কর্মরত। একই প্রতিষ্ঠানে নিরাপত্তারক্ষীর সুপার ভাইজার হিসেবে কর্মরত রয়েছে গ্রেফতারকৃত

ইয়াকুব আলী। সে সুবাদে তারা একে অপরের সহকর্মী। তারা একসঙ্গে চাকরি করার সুবাদে প্রায় সময় ইয়াকুব আলী বাদীর সঙ্গে অশ্লীল কথাবার্তা বলতো।তিন মাস আগে রাতে ডিউটি করার সময় ইয়াকুব আলী বাদীকে গার্মেন্টসের পঞ্চম তলায় কৌশলে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করে।

পরে বিষয়টি কাউকে বললে তাকে চাকরিচ্যুত করা হবে বলে হুমকি দেয়। এরপর থেকে ইয়াকুব আলী প্রায় সময় বাদীকে তার ইচ্ছের বিরুদ্ধে ভয় দেখিয়ে গার্মেন্টসের ভেতরেই ধর্ষণ করে আসছিল। এক মাস আগে ১৭ জুন দুপুর দুইটার দিকে গ্রেফতারকৃত ইয়াকুব আলী বাদীকে জরুরি কথা আছে বলে গার্মেন্টসের পঞ্চম তলায় নিয়ে ভয় দেখিয়ে ধর্ষণ করে।

এ বিষয়ে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ফতুল্লা মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সোহাগ চৌধুরী জানান, ধর্ষণের মামলায় অভিযুক্ত ইয়াকুবকে শুক্রবার ভোরে গ্রেফতার করা হয়েছে। ধর্ষণের শিকার নারীকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য পাঠানো হবে। গ্রেফতারকৃতকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.