রান্না করতে গিয়ে অসাবধানতাবসত হাত পুড়ে গেলে অস্থির হবেন না। দ্রুত চুলা বন্ধ করে দিন এরপর সিদ্ধান্ত নিন কী করবেন। ঘরোয়া উপায়ে প্রাথমিক চিকিৎসা নিশ্চিত করতে পারেন। যেমন-ক্ষতস্থানে ১৫ মিনিট ঠাণ্ডা পানি ঢালুন। ভিনেগারের সঙ্গে সম পরিমাণে পানি মিশিয়ে

ক্ষত স্থানটি ধুয়ে নিন। এটি প্রাকৃতিক অ্যান্টিসেপ্টিকের কাজ করে। অ্যালোভেরার জেল বের করে পোড়া জায়গায় লাগিয়ে নিন। এতে ত্বকে শীতল অনুভূতি দেবে ও জ্বালাভাব কমে যাবে।ইনফেকশনের ঝুঁকি কমাতে মধু ব্যবহার করা যায়। আদা গ্রেট করে রস লাগিয়ে দিন পোড়া স্থানে

জ্বালা কমবে। চা পাতায় আছে ট্যানিক এসিড যা ত্বককে শীতল করে। পোড়া জায়গায় কয়েকটি ঠাণ্ডা ভেজা টি ব্যাগ ধরে রাখুন।
টুথপেস্ট, মাখন, তেল, ময়দা অথবা মধু ক্ষতস্থানে লাগাবেন না। এসবের কোনোটা কাজে তো লাগেই না, উল্টো মারাত্মক সংক্রমণ ঘটাতে

পারে।মনে রাখবেন, শুধু সামান্য পুড়লে এসব করবেন। আর যদি বেশি পুড়ে তাহলে সঙ্গে সঙ্গে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।
যদি বেশি পুড়ে যায়, ব্যথা কম হয়। কারণ ক্ষতের আশেপাশের স্নায়ুও ধ্বংস হয়ে যায়। তখন সেই অবস্থাকে অবহেলা না করে অবশ্যই ডাক্তারের সাহায্য নিতে হবে৷

Leave a Reply

Your email address will not be published.