যশোরের চৌগাছায় বোনকে বিয়ে করার জন্য স্কুলছাত্র ভাইকে অপহরণ করেছেন এক ইমাম। ঘটনার তিনদিন পর স্কুলছাত্রকে উদ্ধার করেছে চৌগাছা থানা পুলিশ। এ সময় অপহরণকারী ইমাম আতাউল্লাহ আল হাবিবকে আটক করা হয়েছে।

অপহৃত পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র আলামিন চৌগাছা উপজেলার মাড়ুয়া গ্রামের আলী কদরের ছেলে। রোববার বিকেল থেকে নিখোঁজ হয় আলামিন। বিষয়টি থানায় জানানো হলে, তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে চৌগাছা থানা পুলিশ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় আলামিনকে যশোর শহরের পালবাড়ি মোড় থেকে উদ্ধার করে। এ ঘটনায় শিশু অপহরণ আইনে মামলা মামলা হয়েছে।

চৌগাছা থানার ওসি সাইফুল ইসলাম সবুজ বলেন, তার নেতৃত্বে এসআই মেহেদী হাসান ও এএসআই শুভেন্দু কুমার পালসহ পুলিশের একটি টিম অপহৃত শিশুকে উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করেন। অপহরণকারী একটি মসজিদে ইমামতি করেন। এছাড়া ভিডিও স্ট্রিমিং প্ল্যাটফরম ইউটিউবে চ্যানেলে বিভিন্ন ওয়াজ মাহফিলের ভিডিও প্রকাশ করেন।

তিনি আরো জানান, অপহরণকারী হাবিবুর রহমানের ছেলে আতাউল্লাহ আল হাবিব দিনাজপুর জেলার পার্বতীপুর উপজেলার স্থায়ী বাসিন্দা। তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে শিশুকে উদ্ধার ও অপহরণকারী আতাউল্লাহ আল হাবিবকে আটক করা হয়েছে।
উদ্ধার হওয়া স্কুলছাত্র আলামিনের বাবা আলী কদর বলেন, আমার মেয়েকে বিয়ে করার জন্য মুক্তিপণ হিসেবে স্কুলপড়ুয়া ছেলেকে অপহরণ করে হাবিব।

Leave a Reply

Your email address will not be published.