ময়মনসিংহের ত্রিশালে সড়ক দুর্ঘটনায় মায়ের পেট ফেটে জন্ম নেয়া সেই শিশু জন্ডিসে আক্রান্ত হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে শিশুটির চিকিৎসায় পাঁচ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে। সোমবার রাতে বেসরকারি লাবীব হাসপাতাল থেকে মমেক হাসপাতালের নবজাতক নিবিড় পরিচর্চা কেন্দ্রে (এনআইসিইউ) চিকিৎসা শুরু হয়েছে শিশুটির।

লাবীব হাসপাতালের পরিচালক মো. শাহজাহান বলেন, শিশুটি কমিউনিটি বেজড মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল (সিবিএমসি) শিশু বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. কামরুজ্জামানের তত্ত্বাবধানে ছিল। কিন্তু জন্ডিসের লক্ষণ দেখা দেওয়ায় চিকিৎসক ফটোথেরাপি দেওয়ার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেন। রাতেই সেখানে ভর্তি করা হয়েছে।

জেলা প্রশাসক (ডিসি) মোহাম্মদ এনামুল হক জানান, শিশুটিকে জন্ডিসের জন্য ফটোথেরাপি দেওয়া হচ্ছে। শিশুটি ভালো আছে। তার সার্বক্ষণিক খোঁজ রাখা হচ্ছে।

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. ওয়ায়েজ উদ্দিন ফরাজী জানান, শিশুটির চিকিৎসায় নিউনেটাল বিভাগের বিভাগীয় প্রধানকে প্রধান করে পাঁচ সদস্যের বিশেষজ্ঞ মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে। মেডিকেল বোর্ডের মতামত অনুযায়ী শিশুটি এখনো শঙ্কামুক্ত নয়। শিশুটি জন্ডিসে আক্রান্ত। এমনিতেই হাড় ভাঙা। রয়েছে রক্তস্বল্পতাও। মেডিকেল বোর্ডের গাইডলাইন অনুযায়ী তার চিকিৎসা চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.