সম্প্রতি কিছুদিন আগেই ৪৬ এ পা দিয়েছেন তিনি। তবুও, টলিউডের হট ডিভা বলতে এখনও যাকে একনামে সবাই চেনেন তিনি হলেন রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়। একসময় চুটিয়ে অভিনয় করেছেন বড় পর্দায়। তবে, একটা সময়ের পর সেই পর্দা থেকে নিজেকে গুটিয়ে নেন তিনি। কিন্তু, বড় পর্দায় যেভাবে তিনি সকলের মন জয় করেছিলেন ঠিক তেমনই ছোট পর্দায়ও তিনি মন জয় করে নিয়েছেন সকলের।

বিকেল ৫ টা বাজলেই জনপ্রিয় গেম শো দিদি নাম্বার ওয়ান নিয়ে সকলের ড্রইং রুমে হাজির হয়ে যান তিনি। ছোট পর্দায় তাঁর লুক থেকে শুরু করে স্ক্রিনে উপস্থাপনা সবেতেই তিনি নজর কেড়েছেন। এককথায় তিনি হলেন বাংলার দিদি নাম্বার ওয়ান। সকল দিদিদের ইন্সপিরেশন। তবে, এ বয়সে এসেও কীভাবে তিনি নিজেকে ধরে রেখেছেন সেই প্রশ্নই ঘোরে সকলের মুখে মুখে। কিছুদিন আগেই নিজের জন্মদিনে হিন্দি গানের সঙ্গে তুমুল নেচে ভাইরাল হয়েছিলেন তিনি।

বয়সকে তুড়ি মেরে তিনি আজও যেন যুবতী। তবে এই যুবতী থাকার রহস্যের কথা জিজ্ঞেস করলে তিনি একটাই কথা বলেন সেটা হল ডাবের জল। কিন্তু এত মেইনটেন্ট এর পাশেও মাঝেমধ্যে কিন্তু অভিনেত্রী চিট ডে করেন। সকলেই জানেন যে অভিনেত্রীর দুর্বল জায়গা হল তার ছেলে। কিন্তু সম্প্রতি অভিনেত্রী নিজেই জানালেই তাঁর আসল দুর্বল জায়গা। নিজের কাজের পাশাপাশি সোশ্যাল মিডিয়ায়ও বেশ জনপ্রিয় অভিনেত্রী।

সম্প্রতি রচনা তাঁর ইন্সট্রাগ্রাম স্টোরিতে একটি ছবি শেয়ার করেছেন। যেখানে দেখা যাচ্ছে যাচ্ছে যে, এক প্লেট মিষ্টি নিয়ে বসে অন্যদিকে তাকিয়ে রয়েছেন অভিনেত্রী। সম্ভবত নিজের ভঙ্গিমায় ছবিটি তুলেছেন অভিনেত্রী। ছবি পোস্ট করে অভিনেত্রী তাঁর উপর লেখেন যে, ‘ সুইট! মাই অনলি উইক পয়েন্ট’ অর্থাৎ মিষ্টি! আমার একমাত্র দুর্বলতা’। আর যা দেখে রীতিমতো অবাক নেটিজেনরা। সম্প্রতি অভিনেত্রীর পোস্ট করা এই ছবি ঝড়ের বেগে ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *