চলতি মাসেই বাংলাদেশের মাটিতে সিরিজ খেলতে আসছে অস্ট্রেলিয়া। পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের জন্য ২৯ জুলাই ঢাকায় পা রাখবে তারা। এই সিরিজে স্মিথ, ওয়ার্নার, ম্যাক্সওয়েল, কামিন্স ও ফিঞ্চরা না থাকলেও দলে আছেন মিচেল স্টার্ক। ওয়েস্ট ইন্ডিজে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে দুর্দান্ত ফর্ম দেখিয়ে স্টার্ক এখন বাংলাদেশের পথে।

এদিকে অনেক ক্রিকেটবোদ্ধার মতে, মিচেল স্টার্কই বর্তমান সময়ের সবচেয়ে সেরা পেসার। তাদের কথায় বেশ যুক্তিও আছে। একজন আদর্শ পেসারের যে যে গুণ থাকা দরকার তার সবকিছুই আছে স্টার্কের মাঝে। ১৫০ কিলোমিটার গতি, দুই দিকেই সুইং, দুর্দান্ত ইয়ার্কার ও বাউন্সারে যেকোনো ব্যাটসম্যানকে নাজেহাল করার ক্ষমতা তার মাঝে বিদ্যামান।

গত দুটি ওয়ানডে বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ উইকেট-শিকারী স্টার্ক। ২০১৫ বিশ্বকাপে তো টুর্নামেন্টের সেরা খেলোয়াড়ই নির্বাচিত হয়েছেন। ২০১৯ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপের পর ফর্মে খানিকটা ভাটা পড়লেও আবারো ভয়ঙ্কর রূপ ধারণ করেছেন স্টার্ক।

সদ্য সমাপ্ত উইন্ডিজ সিরিজে তিন ম্যাচেই ১১টি উইকেট শিকার করেছেন স্টার্ক। ১১ উইকেটের মধ্যে ৭টিই বোল্ড ও এলবিডব্লিউতে। আগুনে বোলিংয়ে ক্যারিবীয়দের পুড়ে ছাই করে হয়েছেন সিরিজসেরা।

এদিকে অস্ট্রেলিয়ার মতো বাংলাদেশও সিরিজ জয়ে চাঙ্গা মুডেই আছে। জিম্বাবুয়ে সফরে টেস্ট, ওয়ানডে, টি-টোয়েন্টি- সব সিরিজই জিতেছে টাইগাররা। তবে ওই সফরে জিম্বাবুয়ের পেসার ব্লেসিং মুজারাবানি কিছুটা ভুগিয়েছে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের। তামিম-মুশফিক-লিটনহীন বাংলাদেশ স্টার্ককে কীভাবে সামলায়- সেটাই এখন দেখার বিষয়!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *