Sports

দিল্লির বিপক্ষে ফিক্সিং করলো রশিদ খান

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ আইপিএলের ফাইনালে একটি স্থান আগেই দখল করে রেখেছে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। আর এবারের আইপিএলের শুরু থেকেই নিজেদের দাপট দেখিয়ে এসেছিল দিল্লি।

লিগ পর্বের শেষে ছন্দ পতন হলেও টেবিলের দ্বিতীয়তে থেকেই প্লে-অফ খেলতে আসে তারা। প্রথম কোয়ালিফায়ার ম্যাচে মুম্বাইয়ের কাছে হারলেও দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে হায়দরাবাদকে ১৭ রানে হারিয়ে আইপিএল ইতিহাসে প্রথমবার ফাইনালে উঠেছে দিল্লি ক্যাপিটালস।

এদিন টস জিতে ব্যাট করতে নেমে সানরাইজার্স হায়দরাবাদকে ১৯০ রানের বিশাল লক্ষ্য বেধে দিয়েছে দিল্লি ক্যাপিটালস। আবুধাবির শেখ জায়েদ ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে ব্যাট করতে নেমে ৩ উইকেট হারিয়ে ১৮৯ রান সংগ্রহ করে দিল্লি। অসাধারণ ব্যাটিং করেছেন শিখর ধাওয়ান আর শিমরন হেটমায়ার। মার্কাস স্টোইনিজও দারুণ ব্যাটিং করেছেন।

মূলতঃ মার্কাস স্টোইনিজ, শিখর ধাওয়ান, স্রেয়াশ আয়ার এবং শিমরন হেটমায়ারের ব্যাটিং তান্ডবে বড় ও চ্যালেঞ্জিং স্কোর গড়তে সক্ষম হলো দিল্লি। টস জিতে ব্যাট করতে নেমে স্টোইনিজ আর ধাওয়ান মিলে দারুণ সূচনা এনে দেন দিল্লিকে। ৮.২ ওভারে দু’জনের ব্যাট থেকে আসে ৮৬ রান। ২৭ বলে ৩৮ রান করেন স্টোইনিজ। ৫টি বাউন্ডারির সঙ্গে ছক্কার মার ছিল ১টি। ৫০ বলে ৭৮ রান করেন ধাওয়ান। ৬টি বাউন্ডারির সঙ্গে ২টি ছক্কার মার মারেন তিনি।

স্রেয়াশ আয়ার ২০ বলে ২১ রান করেন। শেষ দিকে ২২ বলে ৪২ রানে অপরাজিত ছিলেন শিমরন হেটমায়ার। ৪টি বাউন্ডারি এবং ১টি ছক্কার মার মারেন তিনি। রিশাভ পান্ত ছিলেন ২ রানে অপরাজিত। সানরাইজার্সের হয়ে ১টি করে উইকেট নেন সন্দীপ শর্মা, জেসন হোল্ডার এবং রশিদ খান।

এই দিকে রশিদ খান এই ম্যাচে সহজ একটি ক্যাচ মিস করেন ক্যাচটি ছিলো শিখর ধাওয়ানের। যেখানে সবাই এটিকে ফিক্সিং হিসাবে বিবেচনা করেছেন। ইতিমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শুরু হয়ে গেছে সমালোচনা।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button